Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

মালয়েশিয়ায় ৭লাখ ৪৪ হাজার ৯৪২ অবৈধ অভিবাসী

আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে:
মালয়েশিয়ায় ৭লাখ ৪৪ হাজার ৯৪২ জন অবৈধ অভিবাসীর বিপরীতে ৮৩ হাজার ৯১৯ জন নিয়োগকর্তা রি-হায়ারিং করার জন্য আবেদন করেছেন ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের প্রথম ৫ মাসে এ পর্যন্ত ১৭ হাজার ৮৬৯ অবৈধ অভিবাসী আটক হয়েছে মালয়েশিয়ায়। তাদের মধ্যে বাংলাদেশি রয়েছেন ৩ হাজার ৪০৩ জন।

দেশটির ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক মুসতাফার আলী শুক্রবার জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ৬ হাজার ১৯ টি অভিযান পরিচালিত হয়েছে এই সময়ের মধ্যে।

এক বিবৃতিতে তিনি জানিয়েছেন, অভিযানগুলো চলাকালীন সময়ে মোট ৪৫৫ জন নিয়োগকর্তাকে আটক করা হয়েছে। যারা অবৈধ শ্রমিক নিয়োগ দিয়েছেন বা আশ্রয় দিয়েছেন।

মুসতাফার জানিয়েছেন, এ পর্যন্ত আটকৃতদের মধ্যে রয়েছেন, ৬ হাজার ৩১৫ জন ইন্দোনেশিয়ান, ৩ হাজার ৪০৩ জন বাংলাদেশি, ১ হাজার ৯৫৬ জন ফিলিপাইনের নাগরিক, ১ হাজার ৭৪৮ জন মায়ানমার এবং বাকিরা বিভিন্ন দেশের নাগরিক।

তিনি আরো জানান, পুনরায় নিবন্ধনের (রিহায়রিং) জন্যে জানুয়ারির ১ তারিখ থেকে গত বৃহস্পতিবার রাত পর্যন্ত ৭ লাখ ৪৪ হাজার ৯৪২ জন অবৈধ অভিবাসী এবং ৮৩ হাজার ৯১৯ জন নিয়োগকর্তা আবেদন করেছেন।

পুনরায় নিবন্ধনের এই প্রক্রিয়ায় সবেচেয়ে বেশি আবেদন করেছেন বাংলাদেশিরা। এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ৮২ হাজার ৫৩৫ জন বাংলাদেশি পুনরায় নিবন্ধনের আবেদন করেছেন। এরপর ১ লাখ ১৮ হাজার ১১৫ জন, মায়ানমারের ৪৩ হাজার ৮৬০ জন, ৩২ হাজার ৯৯২ জন ভারতীয় এবং আবেদনকারী বাকিরা বিভিন্ন দেশের।

এছাড়াও এই একই সময়ে স্বেচ্ছায় আত্মসমর্পন বা থ্রি প্লাস ওয়ান প্রকল্পের অধীনে ৯২ হাজার ২৮০ জন নিবন্ধন করেছেন এবং গত ৫ মাসে তাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, মোট ৫৩ হাজার ১২৯ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়েছে মেয়াদ পরবর্তী অবস্থানের জন্যে এবং ৩৯ হাজার ১৫১ জন অবৈধ অভিবাসীর কাছে কোন ধরনের বৈধ পাস বা অনুমতিপত্র পাওয়া যায়নি।

নতুন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তান শ্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিনও অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ইমিগ্রেশন বিভাগকে অভিযান অব্যাহত রাখতে বলেছেন।

অবৈধ অভিবাসী এবং বিদেশি অপরাধীদের ধরতে ইমিগ্রেশন বিভাগ সকল ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে বলে ইমিগ্রেশন বিভাগের মহাপরিচালক সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।