Templates by BIGtheme NET
সদ্যপ্রাপ্ত সংবাদ

১ সেপ্টেম্বর থেকে যাত্রা শুরু করবে সীমান্ত ব্যাংক

নিউজ ডেস্ক: চারশ কোটি টাকার মূলধন নিয়ে যাত্রা শুরু হচ্ছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর মালিকানাধীন সীমান্ত ব্যাংক। এই ব্যাংকের মূলধন দিয়েছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ । এর পাশাপাশি বিজিবির সদস্যরাও অনেকেই শেয়ার  হোল্ডার হয়েছেন।

সূত্র জানায়, এই ব্যাংকের গ্রাহক কেবল বিজিবির সদস্যরাই হবেন এমন নয় সর্বস্তরের মানুষ হতে পারবেন। নিয়ম হচ্ছে অন্যান্য ব্যাংকে যাদের ব্যাংক হিসাব খোলার যোগ্যতা আছে তারাই পারবেন। ব্যাংক হিসাব খোলার জন্য একজনের কি যোগ্যতা থাকতে হবে তা বাংলাদেশ ব্যাংক নির্ধারণ করে দিয়েছে। এর বাইরে কিছু কিছু ব্যাংক নিজেরাও কিছু নিয়ম করে নিয়েছে।

বিজিবির সূত্রে জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের প্রধান কার্যালয় পিলখানায় বীর উত্তম ফজলুর রহমান মিলয়নায়তনে ১ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০ টায় এই ব্যাংকের উদ্বোধন করবেন।

ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় হবে পিলখানায় সীমান্ত সম্ভার এ। আপাতত সীমান্ত স্কয়ারের পাশে যেখানে জাদুঘর ছিলো সেখানে প্রধান কার্যালয় হবে। পরে সীমান্ত সম্ভারে স্থানান্তর করা হবে।

জানা গেছে, এই ব্যাংকে সাধারণ গ্রাহকদের জন্য নানা সুযোগ সুবিধা দেয়া হবে। সেই সঙ্গে বিজিবি’র সদস্যর জন্য থাকবে কিছু বাড়তি সুবিধা। এরমধ্যে রয়েছে বিজিবির সদস্যদের তুলনামূলকভাবে স্বল্প সুদে ঋণ দেয়ার ব্যবস্থা।

সীমান্ত ব্যাংকের শেয়ার হোল্ডার বিজিবির সদস্যরা। পার ইউনিট শেয়ার এর মূল্য ধরা হয়েছিলো ১০ টাকা। সেই হিসাবে তাদের অনেকেই শেয়ার হোল্ডার হয়েছেন।

সূত্র জানায়, ১ সেপ্টেম্বর ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় উদ্বোধন করা হলেও পরবর্তীতে আরো পাঁচটি শাখা চালু করা হবে। পরবর্তীতে পর্যায় ক্রমে আরো শাখা বাড়ানো হবে। প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে এই ব্যাংকের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করবেন বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের মহাপরিচালক। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মালিকানাধীন ট্রাষ্ট্র ব্যাংক এর আদলেই এই ব্যাংকটির কার্যক্রম পরিচালনা করতে চায় বিজিবি কর্তৃপক্ষ।